সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Unique-Diy-Home-Decor-Ideas-with-Plant.jpg

সবুজ শুভ্রতা বাড়ির অন্দমহল সেজে উঠুক সবুজ শুভ্রতায়

ঘরকে সাজানোর জন্য ফুলের বিকল্প কেবল ফুলই হতে পারে। ছোট্ট একটা ফুলদানীতে একগুচ্ছ রজনীগন্ধা অথবা এক গুচ্ছ গোলাপ।

সারাদিনের সব অবসাদ আর ক্লান্তির সমাপ্তি ঘটে গৃহে। আবার প্রতিটি নতুন ভোরের সূচনা হয় গৃহে। আর তাইতো, সেই গৃহ মানে বাড়ির অন্দরমহল হওয়া উচিত মন ভালো করার জায়গা। নাগরিক কোলাহলের এই নগরীতে সবুজও আজকাল ধুলামাখা। আমাদের সবারই উচিত নিজের গৃহের অন্দরমহলটাকে একটু সবুজের মায়ায় সাজিয়ে তোলা।

  • ঘরকে সাজানোর জন্য ফুলের বিকল্প কেবল ফুলই হতে পারে। ছোট্ট একটা ফুলদানীতে একগুচ্ছ রজনীগন্ধা অথবা এক গুচ্ছ গোলাপ। রান্নাঘরের কাজ শেষে শোবার ঘরে আসলেও আপনার মনে অন্যরকম শান্তি দিবে ফুল।
  • বড় ড্রয়িং রুম হলে সেন্টার টেবিলে ক্রিস্টেলের বাটিতে রাখতে পারেন চন্দ্রমল্লিকা বা বেলি। মঙ্কে শান্ত রাখার পাশাপাশি যা আপনার ঘরের সৌন্দর্যকে দিবে অন্যরকম মাত্রা।
  • আপনার বারান্দাটা যদি একটু বড় হয় তাহলে তো কথাই নেই। ছোট্ট একটা বাগান বানিয়ে ফেলুন বারান্দায়। ছোট ছোট টবে লাগিয়ে ফেলুন পছন্দের ফুল বা সবজী গাছ। আর কিছু না হলেও একটা মরিচ গাছ, পুদিনা আর পুই শাক তো লাগাতেই পারেন!
  • ঘরের কোনাগুলোরে পাতাবাহারের গাছ কিন্তু বেশ ভালো দেখায়। নার্সারীতে বাহারী পাতাবাহার গাছ পাবেন। কর্নার টেবিলেও চাইলে ছোট ছোট বয়ামে মানি প্ল্যান্টের গাছ রাখতে পারেন। বেসিনেও বেশ ভালো দেখাবে ছোট্ট এসব গাছ।

হতে হবে যত্নবান- 

ঘরে ফুল আর গাছ রাখলে যেমন শান্তি পাবেন, সেই জিনিসগুলোর যত্ন না নিলে কিন্তু হিতের বিপরীত হতে পারে। তাই এ ব্যাপারে আপনাকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে।

  • ফুলদানির পানি সময় মত বদলে দিন। না হয় দুর্গন্ধ হয়ে যাবে। পানিতে পাতা বা পাপড়ি পড়লে তা উঠিয়ে ফেলুন।
  • গাছের পাতা হলুদ হয়ে গেলে ছোট কেচি দিয়ে কেটে ফেলুন। বাজারে স্প্রে ম্যাশিন পাওয়া যায় খুব কম দামে। প্রতিদিন সময় করে গাছে পানি স্প্রে করুন।
  • বারান্দায় গাছ লাগালে সময় করে পানি দিন। আলো আঁধারের ব্যাপারে লক্ষ্য রাখুন।
  • বাসায় ছোট শিশু থাকলে হাতের নাগালে গাছ না রেখে সিকাতে ঝুলিয়ে রাখুন।

ফেলনা জিনিস কাজে লাগান-

ঘরটাকে সবুজের মায়ায় সাজাতে কিন্তু ঘরের ফেলনা জিনিসগুলোই আপনার সাহায্যকারী বন্ধু হয়ে দাড়াতে পারে।

  • পানি  বা কোমল পানীয় পানের পর বোতলগুলো ফেলে না দিয়ে সেগুলোকেই টব বানিয়ে ফেলুন।
    ডিমের খোসা, চাপাতা ফেলে না দিয়ে গাছের গোড়ায় দিন। ভালো সারের কাজ করবে।
  • ফেলনা টিনের কৌটা হয়ে যেতে পারে আপনার গাছ লাগানোর টব।

তাহলে আর কি। এবার থেকে বাড়ির অন্দরমহলকে সাজিয়ে তুলুন সবুজ শুভ্রতায় আর আপনার মনে থাকুক প্রশান্তি সবসময়। 


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।